10 Amazing website- অসাধারণ 10টি Website -Techmoshai

আধুনিক এ যুগে ইন্টারনেট আমাদের নিত্য ব্যবহারের জিনিস গুলোর একটি। আমরা এখন প্রাই সবাই কম বেশি নেট ইউজ করি।
এ পর্বে আমাদের টপিক হলো 10 Amzing website. যে অসাধারণ ওয়েবসাইট গুলো অবশ্যই মুগ্ধ করবে আমাদেরকে।
কেউ বা তার প্রয়োজনীয় জিনিসগুলো ইন্টারনেটের মাধ্যমে খুব কম সময়ে খুব সহজে করে নিচ্ছেন। কেউ বা নেট থেকে মাসে মাসে হাজার থেকে লক্ষাধিক টাকা ইনকাম করছেন। আবার কেউ বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম হিসেবে নিয়েছেন ইন্টারনেটকে।
ইন্টারনেট জুড়ে কিন্তু সাধারণ কাজের ওয়েবসাইট এর পাশাপাশি অসাধারণ ওয়েবসাইট ও কিছু রয়েছে। যে গুলো দিয়ে এ রহস্যময় পৃথিবীর অনেক কিছু জানা যায়।
যেকেউ যে কোন কজেই ইন্টারনেট ব্যবহার করুন, এটা কিন্তু আমাদের প্রতিদিনের ভার্চুয়াল সঙ্গী হিসেবেই আত্মপ্রকাশ করেছে।
টেকমশাই এ আজ আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো এমন কিছু মজার 10 Amazing website নিয়ে, যে অসাধারণ ওয়েবসাইট গুলো আপনাদের অনেক ভালো লাগবে তার সাথে সত্যিই আমাদেরকে খুব বেশি অবাক করবে।
এর মাঝে কিছু এমন ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো নেহাতই মজার বা বিনোদনের জন্যে তৈরী করা হয়েছে।

অন্যদিকে এমনও কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো অনেক শিক্ষনীয়, সে Website গুলো থেকে আমাদের এমন অনেক কিছু শেখার আছে যা অন্য কোথাও পাওয়া যাবে না। আর দৈনন্দিন কিছু কাজ সহজে করেও নিতে পারবো।

Website গুলো আপনারা মোবাইল ফোন বা পিসি যে কোন ডিভাইস দিয়েই ভিজিট করতে পারবেন । বন্ধুদের দেখিয়ে অবাক করে দিতে পারবেন।
তো, কথা আর না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক আজকের এ পর্ব-

কিছু অসাধারণ ওয়েবসাইট (Amazing website)-

Amazing website

1.Hackertyper

Website, app, mobile বা PC এসব কিছু হ্যাক করতে আমাদের কার না ভালো লাগে। নিষিদ্ধ বিষয়ে আমাদের আগ্রহ সবসময়ই সবার উপরে।
তবে, যাদের ইন্টারনেট সম্পর্কে একটু ধারণা আছে তারা হয়তো জেনে থাকবেন, কোন কিছু হ্যাক করতে হলে আমাদের অনেকবেশি কোডিং জ্ঞানের প্রয়োজন। কোডিং জানা ছাড়া হ্যাকিং সম্ভব নয়।
আমরা অনেক সময় সাইন্টিফিক কোন মুভি দেখার সময় হ্যাকিং সিন দেখি, তো সেগুলো কিভাবে করে?
ইন্টারনেটে এমন কিছু মজার ওয়েবসাইট রয়েছে, যেগুলোতে প্রবেশ করার পর আমরা যদি আমাদের কিবোর্ড চাপতে থাকি তাহলে স্ক্রিনে হ্যাকিং করার মত ইন্টারফেস ভাসতে থাকে।
যে কেউ আপনার স্ক্রিন দেখে মনে করবে আপনি হয়তো বড় কোন হ্যাকার। কোন কিছু হ্যাক করছেন।
এমনি একটি ওয়েবসাইট হলো Hackertyper. আপনি ওয়েবসাইটে ঢুকে যদি কি বোর্ড চাপতে থাকেন তাহলে, ব্লাক স্ক্রিনে প্রচুর কোডিং উঠতে থাকবে, যে কেউ দেখে মনে করবে আপনি হ্যাকিং করতে ব্যাস্ত। আপনার প্রচুর কোডিং নলেজ রয়েছে।
তাহলে, আর দেরি না করে চেক করেই দেখুন, আর বোকা বানিয়ে দিন সবাইকে । দেখতে চাইলে এখানে চাপুন

2.10minutemail

দ্বিতীয় যে Amazing Website টি আমাদের তালিকায় রয়েছে তাহলো 10minute mail.
ইন্টারনেটে আমাদের অনেক সময় সাময়িকভাবে কোন কাজ করার জন্য Gmail id এর দরকার হয়। আমরা নিরাপত্তার কথা ভেবে আমাদের Gmail আইডি দিতে চাইনা।
কারণ ভুল জায়গায় আমাদের জি মেইল আইডি দিয়ে দিলে আমাদের ইনবক্সে স্প্যাম মেসেজ আসার সম্ভাবনা থাকে, যা হ্যাকাররা সাধারণত ক্ষতি করার জন্য পাঠিয়ে থাকে।
তো এ সমস্যার সমাধান এর জন্যই তৈরী করা হয়েছে 10minutemail এ ওয়েবসাইটটি।
10minutemail এর সুবিধা হলো, আপনি এতে প্রবেশ করার পর ১০মিনিটের জন্য একটি জি মেইল আইডি বানাতে পারবেন।
যদি সাময়িকভাবে কোন কাজ করার প্রয়োজন হয়, তখন ১০ মিনিটের জন্য এ জিমেইল আইডি খুলে তা ব্যবহার করতে পারবেন। তো বুঝতেই পারছেন এটা আমাদের জন্য কতটা হেল্পফুল। ট্রাই করুন

3. Threatmap

অত্যাধুনিক প্রযুক্তির এ দুনিয়ায় বিশ্বের প্রতিটি কোনায় ছড়িয়ে আছে ইন্টারনেটের জাল। ভাল কাজ যেমন হচ্ছে।
সমানতালে খারাপ ও ক্রাইমের কাজ ও হচ্ছে প্রচুর পরিমাণে।
ফায়ারওয়াল এর দূর্ভেদ্য দেয়াল ভেঙ্গে হ্যাকাররা চুরি করে নিচ্ছে প্রয়োজনীয় ও গুপন তথ্য।
পৃথিবীতে প্রতিসময় কোন দেশে কি পরিমাণে সাইবার এট্যাক হচ্ছে, কি পরিমাণে হ্যাকার হাতিয়ে নিচ্ছে অন্যের গোপনীয় তথ্য তা দেখার অন্যতম একটি উপায় হলো threatmap নামক এ Website টি।
এ অসাধারণ ওয়েবসাইট এ প্রবেশ করার পর আপনি Live Video এর মত করে World Map এর সাথে দেখতে পারবেন হ্যাকিং তথ্যসমূহ। দেখতে পারবেন কোন কোন দেশে প্রতি মিনিটে মিনিটে কত পরিমাণে হ্যাকিং হচ্ছে।
দেরি না করে একবার ট্রাই করেই দেখুন

4.Zoomquilt

চতুর্থ যে সাইটটি নিয়ে আমারা আলোচনা করবো এতে প্রবেশ করার সাথে সাথে একটা Live Animation দেখা যাবে।

এতে একটি ছবির কোন এক বিশেষ জায়গা জুম করা হবে। আর সে জুমকৃত স্থান থেকে নতুন একটি ছবির জন্ম নিবে। আবার জুম করা হবে, আবার নতুন একটি ছবির জন্ম নিবে।

আর এভাবে চলতেই থাকবে। বিষয়টি খুবই ইন্টারেস্টিং।

যে সাইটি তৈরী করেছে সে হয়তো শুধু মজা করার জন্যই এটা তৈরী করেছে। কিন্তু এতে তার সৃজনশীল প্রতিভার প্রতিফলন দেখা যায়।
একটা ছবির কোন একটা ভিউ পয়েন্ট থেকে অন্য একটা ছবি তৈরী করা অবশ্যই সহজ কাজ নয়। তার অসাধারণ ক্রিয়েটিভিটি সে এ সাইটের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলেছে।

5.Scaleofuniverse

রহস্য রোমাঞ্চের এ পৃথিবী থেকে শুরু করে সৌর জগতকে ছাড়িয়ে শত শত গ্যালাক্সির সাথে পরিচয় করিয়ে দেবে Scaleofuniverse নামক এ Website টি।
একেবারে ছোট্ট কোন অনু-পরমাণু যা খালি চোখে দেখাই যায় না তা জুম করে দেখিয়ে দিবে এ সাইটটি।

ছোট জিনিস থেকে জুম আউট করতে থাকলে তার চেয়ে বড় তারপর তারচেয়েও বড় এভাবে চলতে চলতে পৃথিবী ছাড়িয়ে বড় বড় গ্যালাক্সি গুলো দেখা যাবে আপনার পিসি থেকে বা হাতে ধরা স্মার্ট ফোন থেকেই।

দেখতে চান? এখানে চাপুন

6.Imgflip

এ অসাধারণ ওয়েবসাইট টি তৈরী করা হয়েছে, স্পেশিয়ালি মিমি লাভারসদের কথা মাথায় রেখে। যারা মিমি বানাতে পছন্দ করে তাদের জন্য Imgflip হবে পারফেক্ট একটি প্লাটফরম।
ফেসবুকে এখন মজা করার জন্য অনেক কেই meme বানাতে দেখা যায়। কেউ কেউ শিক্ষনীয় বিষয় ও Meme এর মাধ্যমে প্রকাশ করে।
তো যারা meme বানাতে ভালোবাসেন তারা এ ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর সেখানে অনেকগুলো মিমি পেয়ে যাবেন যা কাস্টমাইজ কর‍তে পারবেন অথবা নতুন বানাতে চাইলে প্রথমে ছবি আপ্লোড করতে হবে।
তারপর অসংখ্য অপশন রয়েছে যার মাধ্যমে ছবি কাস্টমাইজেশন করে কাঙ্খিত meme খুব সহজেই বানিয়ে নেয়া যায়।
Mobile অথবা pc যেকোন ডিভাইস দিয়েই বানানো সম্ভব। বানাতে চাইলে Tap here

7.Asoftmurmur

এখানে আপনি শুনতে পারবেন দুনিয়ার সবরকমের শব্দ।
  • বাতাসের শব্দ।
  • ঝিঝিপোকার শব্দ।
  • পাখির কিচিরমিচির।
  • বৃষ্টির শব্দ।
  • সব রকম প্রাণীর শব্দ।
  • কফি শপের মৃদু কোলাহল।
কি নেই এখানে। শব্দগুলো কমবেশি করতে বা একটা শব্দ আরেকটার সাথে জুড়ে দিতে পারবেন আপনি।

যেমন ধরুন বৃষ্টির শব্দের সাথে হালকা বাতাস আর মেঘের গর্জনের শব্দ জুড়ে দিলেন। অপূর্ব শোনা যাবে।

হেডফোন বা ইয়ারফোন কানে দিয়ে শুনলে তো আরোও বেশি চমৎকার শোনা যাবে। তাই সাজেশন থাকলো সেভাবেই শুনার জন্য।
এন্ড্রয়েড এবং আইওএস দুই ভার্শনের জন্য আলাদা সফটওয়্যার ও পেয়ে যাবেন। যা মোবাইল ফোনে ব্যবহার করতে পারেন।

পাশাপাশি যারা ভিডিও এডিটিং এর কাজ করেন, তারা এখানে তাদের প্রয়োজনীয় শব্দ পেয়ে যাবেন। যা ভিডিওতে ইউজ করলে রিয়েল একটা ফিলিং দিবে।

সবার সুবিধার জন্য আমি ডাউনলোড লিংক দিয়ে দিচ্ছি।

8.Flightaware

এ Website এর মাধ্যমে বিশ্বের কোথায় কখন কি ফ্লাইট চলছে তা দেখা যাবে।
সাথে এ মুহূর্তে পুরো ওয়ার্ল্ডে ঠিক কতটি ফ্লাইট চলছে। গন্তব্য স্থান। ফ্লাইট লেট কিনা।
এরোপ্লেন এর বিভিন্ন পজিশন থেকে বিভিন্ন পিকচার ও দেখা যাবে। তো যারা অসীম আকাশে বিমানে চড়তে পছন্দ করেন, বা এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান। তারা এ Amazing website টি ঘুরে দেখতে পারেন। দেখতে চাইলে এখানে চাপুন

9.Annimagraffs

এ ওয়েবসাইটটি পুরোপুরি শিক্ষামূলক একটি ওয়েবসাইট। আমি নিজে এটা অনেক সময় নিয়ে দেখেছি।
Annimafraffs এমন একটি প্লাটফরম, যেখানে আপনি মানুষের অঙ্গপ্রতঙ্গ থেকে শুরু করে জেটবিমানের ইঞ্জিন কিভাবে কাজ করে তার ভিডিও এনিমেশনের সাথে সাথে সে সম্পর্কে ডিটেইলস ইনফরমেশন ও দেখতে পারবেন।
একজন মানুষের চোখ কিভাবে কোন জিনিস দেখতে পারে? একটি সাপের জিভ কেমন করে শব্দ শুনতে পারে? কোন পিস্তল বা মিসাইল কত প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তার লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানে?

পাশাপাশি সকল ধরনের নতুন, পুরাতন ও অত্যাধুনিক মেশিন এবং ইঞ্জিনগুলো কিভাবে বিরামহীন কাজ করতে থাকে?

এ সব প্রশ্নের উত্তর রয়েছে Annimagrafs নামক এ Website এ। তাই শিখতে চাইলে নতুন কিছু, জানতে চাইলে অজানা সব জিনিসের কাজের ধরন ভিজিট করতে পারেন এখান থেকে।

10.survivalinternational

Amzing Website সিরিজের এ Website টাও অনেক বেশি মজার, শিক্ষনীয় এবং সাথে সাথে ভয়ংকর ও বটে।

এতে ঢুকার পর এমন কিছু ছবি বা ভিডিও দেখা যাবে, যে জিনিসগুলো আসলে আমাদের লোকচক্ষুর অন্তরালে রয়েছে। আমরা যা কখনো দেখিই নি।

আমি আমার ব্যাক্তিগত অভিজ্ঞতার কথা বলি। আমি এখানে এমন কিছু উপজাতি দেখলাম যারা গভীর জঙ্গলে বসবাস করে। তাদের জীবনপ্রনালী ও খুব ই বিচিত্র।
ফটোগ্রাফার বা যারা ভিডিও করেছে তারা অনেক সাহস ও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এ কাজ গুলো করেছে এটা খুব সহজেই বুঝা যায়। কারণ কখনো কখনো উপজাতিদের উগ্র ও ভয়ংকর মনে হয়েছে।
পাশাপাশি ভয়ংকর, রহস্য ও রোমাঞ্চকর কিছু স্থান ও সাউন্ড রয়েছে। যা রহস্যপ্রিয়দের মন ধরে রাখতে সক্ষম।

শেষ কথাঃ

অনেক খুঁজে খুঁজে এ সাইট গুলো বের করেছি আর টেকমশাই এ একত্রিত করেছি। আশা করি সবার খুব ভালো লাগবে। অজানাকে জানার জন্য নতুন করে কৌতুহল জাগবে।
কমেন্ট করে বলে দিন কোন সাইট গুলো আপনাদের বেশি ভালো লেগেছে। যাতে পরবর্তীতে আরোও ভালো কিছু নিয়ে আসতে পারি।
শেয়ার বাটন থেকে শেয়ার করে জানিয়ে দিন আপনার বন্ধুবান্ধব কে।
অনেক অনেক অনেক ধন্যবাদ।🙂
Also read-

This Post Has 0 Comments

  1. blogger

    স্যার আপনার এই পোস্ট পড়ার পর। আমার সমস্ত কনফিউশোন দুর হয়ে গেছে।আপনার সাইট ভিজিট করে আমি খুব উপকৃত হয়েছি।আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

  2. Techmoshai Amin

    ধন্যবাদ। পাশে থাকার জন্য

Leave a Reply