অনলাইনে ইনকামের জন্য গুগল এডসেন্স আমাদের কাছে অনেক ভালো একটি প্লাটফরম।

যদিও একটি “ব্লগ থেকে অনলাইনে ইনকামের সেরা উপায়” আরোও কিছু রয়েছে।

তবে এডসেন্স একটি সহজ ও জনপ্রিয় অনলাইন আয়ের মাধ্যম।

আর এডসেন্স থেকে বেশি পরিমাণে ইনকাম করার জন্য আমরা জানি CPC অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

তাই এডসেন্স থেকে মাস শেষে ভালো আয় করার জন্য, CPC বাড়বে এমন কিছু কাজ আমাদেরকে অবশ্যই করতে হবে।

এডসেন্স সিপিসি কি? (What is adsense CPC)

CPC

CPC হচ্ছে Cost Per Click.
কোন ভিজিটর যখন আমাদের ওয়েবসাইটে থাকা কোন বিজ্ঞাপনে ক্লিক করে, তখন সেই ক্লিক থেকে কি পরিমাণ ইনকাম হবে- তা সম্পূর্ণ নির্ভর করে CPC এর উপর।

মানে হচ্ছে, ভিজিটরদের প্রতি ক্লিকে এডসেন্স থেকে আপনার কি পরিমাণে ইনকাম হচ্ছে সেটা নির্ভর করে আপনার CPC কত তার উপর।

CPC কেন এত বেশি গুরুত্বপূর্ণ?

গুগলের এডসেন্স থেকে ইনকামের পরিমাণ বাড়ানোর জন্য CPC অনেক বেশি গুরুত্ব দেয়ার মতো একটি বিষয়।
আমরা যখন প্রথম গুগল এডসেন্স ইউজ করা শুরু করি, তখন এর CPC এর পরিমাণ থাকে সাধারণত 0.01

মানে কোন ভিজিটর যখন আপনার এড (বিজ্ঞাপন) এ ক্লিক করবে তখন এর থেকে আপনার ইনকাম হবে মাত্র 1 সেন্ট।

100cent = 1$

কিন্তু সঠিকভাবে কাজ করলে দিনদিন সিপিসির পরিমাণ বাড়তে থাকে।

তখন ভিজিটরের প্রতি ক্লিকে 0.50 থেকে শুরু করে আরোও অনেক বেশি ইনকাম হতে পারে।

যা সত্যিই অনেক ভালো, আর মাস শেষে খুব ভালো পরিমাণের একটা ইনকাম আমরা গুগল এডসেন্স থেকে করতে পারি।

সুতরাং বুঝতেই পারছেন, গুগল এডসেন্স এর সর্বোচ্চ সুবিধা পেতে আর বেশি পরিমাণে এডসেন্স থেকে আয় করতে সিপিসি এর গুরুত্ব অনেক অনেক বেশি।

গুগল এডসেন্স কিছু বিষয় লক্ষ্য করে তারপর আপনার সিপিসি বাড়িয়ে দেয়।

তাই সিপিসি বাড়াতে হলে আমাদের সে মোস্ট ইম্পর্ট্যান্ট পয়েন্ট গুলো সম্পর্কে জানতে হবে।

ভালো একটি নিশ বেছে নিন।
সবার প্রথমে আপনাকে ভালো একটি নিশ বাছাই করে নিতে হবে।

নিশ (niche) হলো, আপনি যে বিষয়ের উপর লেখালেখি করবেন।

তাই যদি আপনি গুগল এডসেন্স সিপিসি বাড়িয়ে নিতে চান, তাহলে হাই সিপিসি দেয় এমন নিশ গুলো পছন্দ করে নিতে হবে।

বেশি বেশি সিপিসি দেয় এমন কিছু নিশ – (List of some high CPC niche)

  • Online education
  • Blogging and Online income
  • Health
  • Insurance
  • Internet and Telecom

কিওয়ার্ড যাচাই করুন।

দ্বিতীয় যে বিষয়টি সিপিসি বাড়ানোর জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ তা হচ্ছে, সঠিক কিওয়ার্ড গুলো প্রয়োগ করা।

যে নিশ বেশি সিপিসি দেয় সেই রিলেটেড কিওয়ার্ড গুলো বেশি CPC প্রদান করে।

যেমন, মনে করুন- আপনার ব্লগের বিষয় যদি থাকে ব্লগিং ও অনলাইন ইনকাম।

তাহলে ব্লগিং ও অনলাইনে ইনকাম রিলেটেড কিওয়ার্ড গুলো আপনাকে খুঁজে নিতে হবে।

কিভাবে High CPC কিওয়ার্ড খুঁজে বের করবেন?

High CPC Keyword গুলো খুঁজে বের করার জন্য, আপনাকে কিছু অনলাইন টুলের সাহায্য নিতে হবে।

যেগুলোর সাহায্যে কিওয়ার্ড রিসার্চ করা ছাড়াও কিওয়ার্ডের এসইও ডিফিকাল্টি, ব্যাকলিংক অডিট, কিওয়ার্ড পজিশন চেক সহ আরোও অনেক সুবিধা আপনি নিতে পারেন।

কিওয়ার্ড রিসার্চ করার জন্য ইন্টারনেটে অনেক টুল রয়েছে।

তবে, পুরো বিশ্বে সবচেয়ে জনপ্রিয় কিছু কিওয়ার্ড রিসার্চ টুল হচ্ছে-

  • SEMrush
  • Ahref
  • Neilpatel

এ সবগুলো টুলের ফ্রী ভার্শনে কিছু লিমিটেড সুবিধা আপনি পাবেন।

কিন্তু যদি আপনি একজন সফল ব্লগার হতে চান, তাহলে আপনার অবশ্যই উচিত হবে- এদের পেইড ভার্শনটি কিনে নেয়া।

এ টুল গুলোর আরোও কিছু বিশেষ বিশেষ সুবিধা –

এখনি উপরের লিংক থেকে সাইন-আপ করুন।
আর আপনার ব্লগের সিপিসি বাড়িয়ে অনলাইনে ইনকাম করুন আনলিমিটেড।

  • Organic traffic নিয়ে আসুন।

সিপিসি বাড়ানোর জন্য ব্লগে অর্গানিক ট্রাফিক নিয়ে আসা জরুরী।

অর্গানিক ট্রাফিক হচ্ছে- যে ট্রাফিক গুলো কোন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে নয়, বরং বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন ও কোয়ালিটি ব্যাকলিংক গুলো থেকে আসে।

আপনি যেভাবেই ইনকাম করতে চান না কেন, আপনাকে আপনার কাস্টমার ম্যানেজ করতে হবে।

অনলাইনের এ ব্লগ ওয়েবসাইটে আপনার কাস্টমার হচ্ছে আপনার ভিজিটর। যারা আপনার ব্লগে পড়তে আসে।

তাদের মাধ্যমেই আপনার ইনকাম হয়ে থাকে।
তাই, অর্গানিক ট্রাফিক নিয়ে আসার জন্য হাই কোয়ালিটি আর্টিকেল লিখুন।

ওয়েবসাইট খুব ভালো ভাবে SEO করুন।

অবশ্যই পড়ুন,

আপনি যদি কোয়ালিটিসম্পন্ন আর্টিকেল লিখেন, আর তাতে হাই সিপিসি কিওয়ার্ড গুলো ব্যবহার করেন।

তাহলে আপনার ওয়েবসাইটের এর CPC বাড়তে বাধ্য।

আর পাশাপাশি, আপনি যদি “ওয়েবসাইটের ট্রাফিক বাড়ানোর নিয়ম” গুলো জানেন।
তাহলে, আপনাকে ভিজিটর বা ট্রফিকের জন্য আর ভাবতেই হবে না।

আর ট্রাফিক বাড়ার সাথে সাথে আপনার অনলাইনে আয় এর পরিমাণ ও সমানতালে বাড়তে থাকবে।

  • সব ধরনের এডস যুক্ত করুন।

আপনার এডসেন্সে থাকা সর্বপ্রকারের এডস ই ব্যবহার করুন।

আর এ বিভিন্ন প্রকারের এডস ইউজ করার ফলে আদস CPC এর পরিমাণ বেড়ে যাবে।
আবার Ads গুলোতে ক্লিকের পরিমাণ ও বেড়ে যাবে।

তাই Adsense CPC বাড়ানোর জন্য কমবেশি সবধরনের Ads ই ব্যবহার করুন।

বেশি পে করে, এমন এডস বেশি ইউজ করুন।
আপনি যখন সবধরনের এডস আপনার ব্লগে ইউজ করবেন, তখন এডসেন্স ড্যাশবোর্ডে আলাদা আলাদা রেজাল্ট দেখতে পাবেন।

জানতে পারবেন কোন বিজ্ঞাপন গুলোতে বেশি ক্লিক হচ্ছে, আর কোন বিজ্ঞাপন গুলো ক্লিকের জন্য বেশি টাকা প্রদান করছে।

তারপর যে গুলো বেশি ক্লিক হচ্ছে বা বেশি টাকা দিচ্ছে, সে বিজ্ঞাপন গুলো ব্লগে বেশি ইউজ করবেন।

বেশি বলতে অবশ্যই পরিমিত। অতিরিক্ত বিজ্ঞাপন ব্যবহার করলে, পাঠকদের পড়তে অসুবিধা হবে।

সাথে সাথে আপনার ব্লগের লোডিং স্পীড কমে যাবে।

জেনে নিন,

ওয়েবসাইট লোডিং স্পীড ভালো থাকলে ভিজিটররা বিরক্ত হোন না। অনেক গুলো লেখা অনেক সময় নিয়ে পড়তে পারেন।

  • একটি মাত্র কোম্পানির এড যুক্ত করবেন।

আমরা জানি গুগল ছাড়াও এমন আরোও অনেক Ads company আছে। যারা এডস দেখানোর জন্য টাকা প্রদান করে।

তবে এদের মধ্যে সবচেয়ে ভালো হচ্ছে Googe Adsense.

তাই আপনার জন্য উচিত হবে প্রথম চয়েজ হিসেবে গুগল এডসেন্স কে রাখা।

গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায়” গুলো জেনে তারপর এপ্লাই করলে এপ্রুভাল পাওয়ার সম্ভাবনা প্রায় শত পার্সেন্ট।

তারপরও যদি আপনি কোন কারণে ব্যার্থ হোন, তাহলে অন্য ভালো এডস কোম্পানি গুলোতে এপ্লাই করতে পারেন।

তবে আপনি যে কোম্পানির এডস ই ব্যবহার করেন না কেন, সবার নিজস্ব CPC থাকে।
আর এ CPC বাড়িয়ে নিতে শুধুমাত্র একটি কোম্পানির এডস ই ইউজ করুন।

সতর্কতা- একাধিক কোম্পানির বিজ্ঞাপণ ব্যবহার করা বিপদজনক হতে পারে। কারণ গুগলের এডস এর পাশাপাশি বা এর স্থানে অন্য কোম্পানির এডস শো করলে, আপনার গুগল এডসেন্স ব্যান হয়ে যেতে পারে।
কারণ এটা গুগল এডসেন্স পলিসির বিরুদ্ধে।

  • ভালো মানের থিম ইউজ করুন-

ব্লগের এডস গুলো সুন্দর ভাবে শো করার জন্য ভালো একটি থিমের কোন বিকল্প নেই।
আপনার বাজেট না থাকলে আমি আপনাকে প্রিমিয়াম থিম ইউজ করার কথা বলছি না।
ব্লগারের জন্য বা ওয়ার্ডপ্রেসে এমন অনেক ভালো ভালো ফ্রী থিম রয়েছে যা যথেষ্ট পরিমাণে ভালো ।

তাই আপনার কাজ অনুযায়ী একটি ভালো থিম বাছাই করে নিবেন।

সবচেয়ে ভালো কিছু ওয়ার্ডপ্রেস থিম হলো-

এদের মধ্যে আপনার যেটা বেশি ভালো লাগে সেটাই আপনি পছন্দ করে নিতে পারেন।
এতে আপনার ব্লগে থাকা এডস গুলো ঠিকঠাক ভাবে শো করবে।

যা তাড়াতাড়ি লোড হবে, দেখতে ভালো লাগবে ও ক্লিক পরবে অনেক বেশি।যা ব্লগ থেকে অনলাইনে ইনকামের পরিমাণ বাড়িয়ে দেবে।

  • সঠিক জায়গায় এডস যুক্ত করবেন।

যেখানে সেখানে এডস ইউজ না করে, যেখানে ভালো দেখায় ও বেশি ক্লিক পায়, সেখানে ব্যবহার করুন।

এতে যেমন CPC বাড়বে, বেশি ক্লিপ পাওয়ার কারণে ব্লগ থেকে ইনকাম ও বাড়বে।

কোথায় এড ব্যবহার করবেন না?

আপনার ওয়েবসাইটের স্পীড যদি কম থাকে বা ওয়েবসাইট এর লোডিং স্পীড বেশি বাড়িতে নিতে চান।

তাহলে আমি বলবো হোমপেজে বিজ্ঞাপণ ব্যবহার না করার জন্য।

আর ব্যবহার করলেও একটি বা দুটি এর বেশি নয়।

হোমপেজের স্পীড খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

যেখানে যেখানে বিজ্ঞাপন লাগাবেন-

  • আর্টিকেলের সবার উপরে।
  • টেক্সট এডস থাকলে পোস্ট টাইটেলের নিচে।
  • লেখার ২০ প্যারা পরে।
  • তারপর ৪০ প্যারার পরে।
  • আর্টিকেলের শেষে।

এভাবে প্রতি ১০০০ ওয়ার্ডের আর্টিকেলে বিভিন্ন টাইপের ৪-৫ এডস লাগিয়ে নিতে পারেন।
এতে CPC+Impression ভালো আসবে ও ইনকাম বেড়ে যাবে।

Adsense
Traffic growth

CPC বাড়াতে ভিজিটরের লোকেশন গুরুত্বপূর্ণ।
হ্যাঁ, আপনি যদি আপনার ব্লগের সিপিসি বাড়িয়ে নিতে চান, ও প্রতি ক্লিকে বেশি আয় করতে চান তাহলে আপনার ইন্টারন্যাশনাল ভিজিটর লাগবে।

বাংলাদেশি কোন ভিজিটর যদি আপনার ব্লগের এডসে ক্লিক করে তাহলে যে পরিমাণে ইনকাম হবে,
তারচেয়ে অনেক বেশি ইনকাম হবে যখন US এর কোন লোক বিজ্ঞাপনে ক্লিক করবে।

তাই আপনি যদি ইংরেজিতে দক্ষ হয়ে থাকেন, আর ইংরেজীতে লেখতে স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন-
তাহলে আপনাকে আমি অবশ্যই বলবো ইংরেজিতে ব্লগ খোলার জন্য।

এতে আপনার ভিজিটর হবে বিশ্বব্যাপি।
তবে অনেকেই ইংরেজিতে লিখার চাইতে তাদের নিজেদের ভাষায় লিখতেই পছন্দ করে।

এটা খারাপ কিছু না, কারণ ছোট বড় প্রায় সবাই এখন গুগল ইউজ করে।

তাই, বাংলা আর্টিকেল লিখলে যে আপনি ভিজিটর পাবেন না, বিষয়টি এমন নয়।

CPC হয়তো US এর তুলনায় কম পাবেন, কিন্তু যা পাবেন – ভিজিটর একটু বেশি হলেই তাতেই পুষে যাবে।

আপনার সফল সুন্দর ব্লগিং ক্যারিয়ার কামনা করছি।

By Techmoshai Amin

টেকনোলজি সম্পর্কে পড়তে ভালোবাসি, লিখতে ভালোবাসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *